খোলা কলাম

ফেব্রুয়ারী ১৮, ২০১৫, ১২:৫২ পূর্বাহ্ন

সব যদি স্বাভাবিক হবে?

সাজেদুল হক

সময়ের ব্যবধান দু’ঘণ্টার মতো। দূরত্ব অবশ্য অনেক। ঢাকায় সচিবালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে সিনিয়র মন্ত্রী আমির হোসেন আমু জানালেন, সবকিছুই স্বাভাবিক। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে সরকার অত্যন্ত সন্তুষ্ট। ঘণ্টা দুয়েক পর সিলেটে আরেক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ জানালেন, বুধবারের এসএসসি পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। বিরোধী জোটের হরতালের কারণেই এ পরীক্ষা পেছানো হয়। আমির হোসেন আমু ছাড়াও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমও বলেছেন, দেশের সবকিছু স্বাভাবিক। কোথাও হরতাল হচ্ছে না।

কয়দিন ধরেই এ প্রচারণা চলছে, সব ঠিক আছে। কোথাও কোন সঙ্কট নেই। কিন্তু এ নিয়ে অন্তত ১০টি প্রশ্ন উঠেছে-

১. সব যদি স্বাভাবিক হবে তবে দফায় দফায় কেন এসএসসি পরীক্ষা পেছানো হচ্ছে? সর্বশেষ আজকের এসএসসি পরীক্ষা কেন পেছানো হলো। ‘কোন কারণ’ ছাড়াই কেন শিক্ষার্থীদের জীবন বিপন্ন করা হচ্ছে? রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বেশিরভাগ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। রাজধানীর বহু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শুক্রবার-শনিবার ক্লাস পরীক্ষা নিয়ে ক্ষতি কাটিয়ে উঠার চেষ্টা করা হচ্ছে। তা কেন?

২. বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয় অভিমুখে প্রতিদিনই সরকারপন্থি বিভিন্ন সংগঠন যাত্রা করছে। খালেদা জিয়ার কাছে হরতাল-অবরোধ প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছেন তারা। দেয়া হচ্ছে আলটিমেটাম। হরতাল-অবরোধ যদি নাই হয় তবে তা প্রত্যাহারের দাবি উঠছে কেন?

৩. পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার দাবিতে সব ব্যবসায়ী সংগঠনই রাস্তায় নেমে এসেছে। বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠনের শীর্ষ নেতারা সংবাদ সম্মেলন করে হিসাব দিচ্ছেন তাদের কত টাকা ক্ষতি হচ্ছে। ‘স্বাভাবিক পরিস্থিতি’ সত্ত্বেও কেন তারা তা করছেন?

৪. অর্থমন্ত্রী আবুল মাল মুহিত সোমবারও বলেছেন, টানা অবরোধের কারণে সারা দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা ব্যাহত হচ্ছে। এজন্য সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে কৃষক। তারা পথে বসে গেছেন। মফস্বল এলাকায় বিপর্যয় নেমে এসেছে। এর আগেও তিনি বলেছিলেন, জেলা শহরগুলোর পরিস্থিতি মারাত্মক? কেন তিনি এসব কথা বলছেন?

৫. নিরপেক্ষ সূত্রগুলো দাবি করছে, মহাসড়কগুলোতে ২৫ ভাগের বেশি যানবাহন চলাচল করছে না। সরকারই রাত ৯টার পর গাড়ি না চালাতে পরিবহন মালিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। সবকিছু যদি স্বাভাবিক হবে তবে মহাসড়কে কেন স্বাভাবিক যানবাহন চলছে না?

৬. বার্ন ইউনিটে মানুষের আর্তনাদ দেখে কোন সুস্থ-স্বাভাবিক মানুষই স্থির থাকতে পারছেন না। কেন এখনও বার্ন ইউনিটে মানুষ আসছে। কেন পঙ্গু হাসপাতালে গুলিবিদ্ধ মানুষের ভিড় বাড়ছে? কেন পেট্রলবোমা হামলায় দগ্ধ হচ্ছে মানুষ? কেন মারা যাচ্ছে তারা। কেন আগুন জ্বলছে বাসে। কেন ককটেল বিস্ফোরণ হচ্ছে যত্রতত্র। কেন ক্রসফায়ারে মারা যাচ্ছে আদম সন্তান। কেন পায়ে গুলি করা হচ্ছে নিরীহ মানুষের।

৭. সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি কেন হরতাল-অবরোধে বিচার কার্যক্রমে অংশ নেয়া থেকে বিরত রয়েছে। কেন বিঘ্ন ঘটছে বিচার কার্যক্রমে। কেন প্রতিদিন মিছিল হচ্ছে উচ্চ আদালতে।
৮. সরকারপ্রধানের তাগাদা দেয়ার পরও বেশিরভাগ সংসদ সদস্য নিজ এলাকায় যাননি। কেন কয়েকটি জায়গায় তাদের সমাবেশ হামলার শিকার হয়েছে।

৯. কারাগারগুলো কেন বন্দিদের ভিড়ে ঠাসা? কেন ৪০ দিনে ১৪ হাজার মানুষকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কেন অভিযানের নামে মানুষের ঘরবাড়ি তছনছ করা হচ্ছে। কেন প্রতিনিয়ত হয়রানির শিকার হচ্ছেন মানুষ?

কেন বহু মানুষ হতাশ হয়ে পড়ছেন? কেন তারা দেশত্যাগের চেষ্টা করছেন?-মানবজমিন