স্বাস্থ্য

মে ১২, ২০১৫, ১০:১৭ পূর্বাহ্ন

আন্তর্জাতিক সেবিকা দিবস আজ

ইমরান হোসেন মাসুদ

একজন রোগী চিকিৎসা গ্রহনের উদ্দেশ্যে হাসপাতাল বা ক্লিনিকে যাওয়ার পর থেকে রিলিজ পেয়ে বের হয়ে আসা পর্যন্ত সর্বক্ষণ যিনিতার দেখভাল করেন, তিনি একজন সেবিকা। রোগীর জন্য একজন ডাক্তারের পরামর্শের চেয়ে কোনো অংশেই কম গুরুত্বপূর্ণ নয় সেবিকার সেবা।

আজ ১২ মে মানবসেবায় অনন্য দায়িত্বপালনকারী সেই সেবিকাদের স্বীকৃতির দিবস, আন্তর্জাতিক সেবিকা দিবস। বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও এ দিবসটি পালন করা হচ্ছে। এ বছর দিবসের প্রতিপাদ্য ‘নার্স : পরিবর্তনের এক সহায়ক শক্তি ব্যয় সাশ্রয়ী কার্যকর সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে’।

আধুনিক নার্সিংয়ের প্রবর্তক মহীয়সী সেবিকা ফ্লোরেন্স নাইটিংগেলের সেবাকর্মের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তার জন্মদিন ১২ মে আন্তর্জাতিক নার্স দিবস পালন করা হয়। তিনি ১৮২০ সালের ১২ মে ইতালির ফ্লোরেন্স শহরে এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। ফ্লোরেন্স নাইটিংগেলকে আধুনিক নার্সিংয়ের প্রবর্তক বলা হয়।

দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশ নার্সেস অ্যাসোসিয়েশন (বিএনএ) বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এসব কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

আন্তর্জাতিক নার্স দিবস উদযাপন উপলক্ষে আগামীকাল সকাল ৮টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় একটি র্যািলির আয়োজন করেছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলা থেকে এ র‌্যালি বের হবে।

সকাল ১১টায় শহীদ ডা. মিলন হলে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল ইসলাম খান।

এদিকে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দেশে প্রশিক্ষিত নার্সের সঙ্কট প্রকট আকার ধারণ করেছে। আর তা দেশের চিকিৎসাসেবার ওপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে। তারা বলছেন, বিশ্বের সব দেশে চিকিৎসকদের চেয়ে নার্সের সংখ্যা বেশি হয়ে থাকে। বাংলাদেশে তার উল্টো অবস্থা বিরাজ করছে।

প্রয়োজনের তুলনায় দেশে প্রায় দু’লাখ নার্স কম রয়েছে। কোথাও কোথাও নার্স আছেন অনুমোদিত পদের প্রায় অর্ধেক। ফলে রোগীরা মানসম্পন্ন চিকিৎসাসেবা পাচ্ছেন না। এ সুযোগে চিকিৎসা সেক্টরে প্রবেশ করছে অনেক ভুয়া নার্স। এসব নার্সের কারণে চিকিৎসা সেক্টরে ভুল সেবায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগও উঠছে।

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বাংলাদেশের চিকিৎসাসেবার মান গ্রহণযোগ্য করে তুলতে যা বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রতি শিক্ষাবর্ষে ডাক্তারি আর নার্সিং শিক্ষায় ছাত্রছাত্রী ভর্তির হার প্রায় সমান সমান। ফলে গোড়াতেই ঘাটতি শুরু হয়। নার্সের সংখ্যা বাড়াতে হলে প্রতি বছর মেডিক্যাল কলেজগুলোয় যে সংখ্যক ছাত্রছাত্রী ভর্তি করা হয়, নার্সিংয়ে তার চেয়ে কমপক্ষে তিন গুণ বেশি ছাত্রছাত্রী ভর্তি করা দরকার বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। এমন অবস্থার মধ্য দিয়ে আজ পালিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক সেবিকা দিবস।

নিউজ পেজ২৪/ইএইচএম