জুলাই ১৬, ২০১৫, ১২:১৮ অপরাহ্ন

গরুর হৃদযন্ত্রে নবজীবন পেলেন বৃদ্ধা

নিজস্ব প্রতিবেদক

গরুর হৃৎপিণ্ড দ্বারা তৈরি একটি হৃদযন্ত্র (ভালভ) জীবন ফিরিয়ে দিল ৮১ বছরের এক বৃদ্ধার। ওই বৃদ্ধার বাড়ি ভারতের হায়দরাবাদে। তিনি মহাধমনির হৃদযন্ত্র (অ্যারটিক ভালভ) সংকুচিত হওয়ার রোগে ভুগছিলেন।

শুক্রবার চেন্নাইয়ের ফন্ট্রিয়ার লাইফলাইন হাসপাতালে ব্যতিক্রমধর্মী অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে গরুর হৃৎপিণ্ড দিয়ে তৈরি কৃত্রিম একটি হৃদযন্ত্র ওই নারীর শরীর সফলভাবে প্রতিস্থাপন করলে নতুন জীবন ফিরে পান তিনি।


ওই হাসপাতালের চিকিৎসক কে এম চেরিয়ান বলেন, যাদের মহাধমনির হৃদযন্ত্রের নালি সংকুচিত এবং এ রকম ঝুঁকিপূর্ণ রোগের প্রথাগত ওপেন হার্ট সার্জারি থেকে ব্যতিক্রমধর্মী সফল একটি পদক্ষেপ এটি।

বৃহস্পতিবার টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়, ১১ বছর আগে সার্জারির মাধ্যমে ওই নারীর হৃৎপিণ্ড প্রতিস্থাপন করা হয়েছিল। সেই বছর থেকেই তার হার্টের সমস্যা দেখা দেয়। তিনি দেশের বেশ কিছু হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য গিয়েছিলেন। কিন্তু কোনো ইতিবাচক ফল পাননি।

অস্ত্রোপচারের অংশ নেওয়া হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক আনানথারামান বলেন, শ্বাস-প্রশ্বাসজনিত মারাত্মক সমস্যা নিয়ে তিনি এপ্রিল এ হাসপাতালে আসেন এবং ভর্তি হন। পরীক্ষা করে দেখা যায় তার মহাধমনির হৃদযন্ত্র সংকুচিত হয়ে আসছে। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে আক্রান্ত হৃদযন্ত্রকে সরিয়ে ফেলে সেই জায়গায় নতুন আরেকটি হৃদযন্ত্র প্রতিস্থাপন করা হয়।

তবে নারীর বয়সের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে সবচেয়ে কম সময়ের মধ্যে অস্ত্রোপচারের চেষ্টা করেন চিকিৎসকরা।

তিনি আরো বলেন, ওই অস্ত্রোপচারে গরুর হৃৎপিণ্ডর টিস্যু থেকে তৈরি করা একটি কৃত্রিম হৃদযন্ত্র ব্যবহার করি। তার কুঁচকির একটি বড় ধমনির মধ্যে দিয়ে মূত্রাশয়ে হৃদযন্ত্রটি স্থাপন করা হয়।

খবরে বলা হয়, অস্ত্রোপচারটি বেশ জটিল ছিল। এর আগে হৃৎপিণ্ডে অস্ত্রোপচার ছাড়াও স্তন ক্যানসারের জন্য দীর্ঘদিন চিকিৎসাও তিনি নিয়েছিলেন।

নিউজ পেজ২৪/ইএইচএম