জুলাই ৩০, ২০১৫, ৩:৩৬ অপরাহ্ন

মায়ের পেটে গুলিবিদ্ধ হয়ে বেঁচে যাওয়া 'অলৌকিক' শিশু

নিউজ পেজ ডেস্ক

শিশুটি ছিল মায়ের পেটে। সঠিক সময়ে জন্মের ছিল আরও ৩ মাস বাকি। কিন্তু, নৃশংস কিছু মানুষের জন্য মায়ের পেটে থাকা অবস্থায়ই গুলিবিদ্ধ হয় সে। পিঠে গুলি লেগে তা শরীরের চারটি অংশ ক্ষতিগ্রস্ত করে। তারপরও মাগুরায় গুলিবিদ্ধ নবজাতকের বেঁচে যাওয়াটাকে অনেকটা অলৌকিক ঘটনা হিসেবে দেখছেন চিকিৎসকরা।

মায়ের উপর সম্পূর্ণ নির্ভরশীল ৩৪ সপ্তাহের ভ্রূণ। যেকোনো ধর্ম, বিজ্ঞান বা মানব সভ্যতার ইতিহাস মতে, একজন মানব শিশুর জন্য পৃথিবীর সবচেয়ে নিরাপদ জায়গা এটি। কিন্তু মানুষের নৃশংসতা মাতৃজঠরেও নিরাপদ হতে দেয় না শিশুকে।

চলতি মাসের ২৩ তারিখ মাগুরার দোয়ারপাড়ায় ঘটে এমন একটি অমানবিক ঘটনা। আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দু'গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হন সন্তানসম্ভবা নাজমা বেগম। আশঙ্কাজনক অবস্থায় মাগুরা সদর হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে এক কন্যাশিশুর জন্ম দেন নাজমা। মৃত নয় জীবিত। চিকিৎসকরা যাকে দেখছেন অলৌকিক ঘটনা হিসেবে।

শিশু সার্জারি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক কানিজ হাসিনা জানান, বিভাগীয় প্রধান আশরাফুল ইসলাম কাজলকে প্রধান করে চার বিভাগের চিকিৎসকদের সমন্বয়ে একটি বোর্ড গঠন করা হয়।

বর্তমানে অবস্থা স্থিতিশীল হলেও, দু'সপ্তাহের নিবিড় পর্যবেক্ষণের পরই নবজাতকটির অবস্থা সম্পর্কে জানা যাবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

নিউজ পেজ২৪/আরএ.