লাইফ স্টাইল

জানুয়ারী ১৩, ২০১৬, ৩:০৪ অপরাহ্ন

ফোনে বিব্রতকর পরিস্থিতি মোকাবেলায় যা করণীয়

ইমরান মাসুদ

ফোনের ব্যবহার আমাদের দৈনন্দিন জীবনে যেমন নিয়ে এসেছে স্বাচ্ছন্দ্য, তেমনি অনেক বিব্রতকর পরিস্থিতিরও জন্ম দিয়েছে। দেখা যায় অনেক সময় বিভিন্ন বিব্রতকর ফোন এসে আপনার মূল্যবান সময়কে নষ্ট করে দিতে পারে, আপনি হতে পারেন বিরক্ত।

তাই বিব্রতকর ফোনকল থেকে নিজেকে মুক্ত করতে আপনি কিছু পদ্ধতিতে ফোনের ব্যবহার করতে পারেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক কোন পদ্ধতিগুলো আপনাকে এই সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে পারে।

মেসেজের ওপর নির্ভরশীলতা আনুন: ফোনে মেসেজের ব্যবহার এই সমস্যা থেকে আপনাকে মুক্তি দেবার ক্ষেত্রে অতি চমৎকার একটি উপায়। ফোনে কথা বলার থেকে মেসেজের মাধ্যমে তথ্য আদান প্রদান করুন। এতে করে কে ফোন করছে এটার জন্য আগে থেকেই মাথাব্যথা করতে হবে না। চাইলে আপনি ইনকামিং কল লিমিটেড করে রাখতে পারেন।

ফোন সাইলেন্ট করে রাখুন: ফোন নিজের কাজের সময় কিংবা অপ্রয়োজনীয় সময় সাইলেন্ট করে রাখতে পারেন। তাহলে হুট করে বিব্রতকর পরিস্থিতি এড়ানো যাবে। তবে অনেক সময় মাথা ঘোরানো কিংবা বমি বমি ভাবের জন্য ফোনের রিংটোন-ই দায়ী। তাই এই পদ্ধতিটি আপনাকে যেমন এই বিব্রতকর পরিস্থিতি থেকে মুক্ত করতে সক্ষম তেমনি আপনাকে সুস্থ রাখার ক্ষেত্রেও সহায়ক।

অফিসের ফোনটি অকার্যকর: অফিসের বাইরের সবাইকে জানিয়ে দেওয়া ভালো যে অফিসের ফোনটি অকার্যকর। ফলে আপনার কাজের সময় কেউ আপনাকে ফোন করে বিব্রত করার সুযোগ পাবে না।

ব্যক্তিগত একটি ফোন সংরক্ষণে রাখুন: নিজের একান্ত একটি ফোন ব্যবহার করতে পারেন। যেটার সন্ধান আপনার একান্ত মানুষেরা ছাড়া আর কেউ জানবেনা। তাহলে আপনার সাধারণ নম্বরটি ইচ্ছেমত বন্ধ করে রাখতে পারবেন । যেটি আপনাকে বিভিন্ন বিব্রতকর পরিস্থিতি এড়াতে সাহায্য করবে।

ফোনে অর্ডার করা থেকে বিরত থাকুন: কোনো অনলাইনে পণ্য কিনতে কিংবা যেসকল স্থানে ফোন নম্বর দিলে একাধিক ব্যক্তি জানার সম্ভবনা আছে সেখানে আপনার ব্যক্তিগত নম্বরটি দেওয়া থেকে বিরত থাকুন। তাহলে আপনার নম্বরটি সুরক্ষিত থাকবে।

ভয়েস মেইল: ভয়েসমেইল ব্যবহার করা যেতে পারে। এর ফলে আপনি যাকে অপছন্দ করেন বিনা বাধায় আপনি তাকে আপনার কথা বলতে পারেন। এক্ষেত্রে কোনোরকম বিরক্তিকর পরিস্থিতি তৈরি হবার সুযোগ থাকবে না।


ব্লক লিস্ট: ব্লক লিস্ট ব্যবহার করে যে নম্বর থেকে আপনাকে ডিস্টার্ব করা হয় সেটি ব্লক করে রাখতে পারেন। এর ফলে আপনাকে সে আর ওই নাম্বার দিয়ে বিরক্ত করার সুযোগ পাবে না।

ফোন কেটে দিন: শুরুতেই যদি টের পেয়ে যান আপনাকে ফোনটি বিরক্ত করার জন্য দেওয়া হয়েছে সেক্ষেত্রে সঙ্গে সঙ্গেই কলটি কেটে দিন। কথা প্রলম্বিত না করলে সমস্যা থাকার কথা না।

অপরিচিত কারো সঙ্গে অন্তরঙ্গতা নয়: অপরিচিত লোকের সঙ্গে অন্তরঙ্গতা দেখানো ঠিক নয়। কারণ সে যদি বিরক্তিকর লোক হয় এরপর আপনাকে আবার নতুন করে ফোন করে বিব্রত অবস্থায় ফেলতে পারে। তাই অপরিচিত লোকের সঙ্গে কথা বলার ক্ষেত্রে সতর্ক থাকুন।

হেল্পলাইন: কোনো নাম্বার থেকে আপনাকে চরম মাত্রায় বিরক্ত করা হলে আপনি সেটা হেল্পলাইনে জানাতে পারেন। এই সিদ্ধান্তটি আপনাকে বিব্রতকর অবস্থা থেকে মুক্তি দিতে পারে।

নিউজ পেজ২৪/ইএইচএম