ধর্ম

জানুয়ারী ১৭, ২০১৬, ১০:৫২ পূর্বাহ্ন

টঙ্গীতে মুসল্লির ঢল, অপেক্ষা আখেরি মোনাজাতের

নিজস্ব প্রতিবেদক

টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা ময়দান এবং এর আশপাশ এলাকায় ধর্মপ্রাণ মুসল্লির ঢল নেমেছে। ময়দানে জায়গা না পেয়ে মুসল্লিরা অবস্থান নিচ্ছেন ময়দান সংলগ্ন ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক, কামারপাড়া সড়কসহ আশপাশের সড়ক অলিগলিতে। ময়দান ও আশপাশ এলাকার যে দিকে চোখ যায় শুধু টুপি আর পাঞ্জাবি পড়া মুসল্লি আর মুসল্লি। সবাই অপেক্ষায় আছেন আখেরি মোনাজাতের। মুসল্লিদের পদচারণায় বিসিক শিল্প নগরী টঙ্গী যেন পুন্যভূমিতে পরিণত হয়েছে।

রোববার সকালে হেদায়াতি বয়ান দিয়ে শুরু হয় এবারের বিশ্ব ইজতেমার শেষ দিন। তাবলিগ জামাতের শীর্ষস্থানীয় মুরব্বি ভারতের মাওলানা মুহাম্মদ সা’দ বয়ান করছেন। বেলা ১১টার দিকে তিনিই তিন দিনব্যাপী বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের শেষ আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন বলে জানিয়েছেন বিশ্ব ইজতেমার আয়োজক কমিটির অন্যতম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মো. গিয়াস উদ্দিন।

আখেরি মোনাজাতে রবিবার শেষ হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমা। মোনাজাতে অংশ নিতে গাজীপুর টঙ্গীর তুরাগতীরে ভোররাত থেকে মুসল্লিরা ছুটেছেন।


বেলা ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টার মধ্যে এই মোনাজাত হবে। ভারতের মাওলানা মুহাম্মদ সাদ এই মোনাজাত পরিচালনা করবেন।


এর আগে রবিবার ফজরের নামাজের পর থেকে ভারতের মাওলানা সাদ হেদায়তী বয়ান করছেন।

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এসএম আলম বলেন, প্রথম পর্বের মতো দ্বিতীয় পর্বেও আজ বেলা সাড়ে ১১টার মধ্যে আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে।


তীব্র শীতকে উপেক্ষা করে ভোররাত থেকে গাজীপুরের চান্দনা চৌরাস্তা এলাকা থেকে মুসল্লিরা পায়ে হেঁটে ইজতেমা ময়দানের দিকে যাচ্ছেন। যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকায় কেউ কেউ রিকশা দিয়ে ইজতেমা ময়দানের দিকে যাচ্ছেন।


মোনাজাতকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। বিপুলসংখ্যক নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা ইজতেমা ময়দান ও এর আশপাশের এলাকায় অবস্থান নিয়েছে।


গাজীপুরের পুলিশ সুপার হারুন-আর রশিদ জানান, মোনাজাতের পর মুসল্লিদের বাড়ি ফেরা পর্যন্ত ইজতেমা ময়দানসহ আশপাশের এলাকায় ৫০০০’র বেশি পুলিশ নিয়োজিত থাকবে।


এছাড়া সাদা পোশাকে মুসল্লিদের বেশে খিত্তায় খিত্তায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে বলেও জানান তিনি।


নিউজপেজ/ইএইচএম