তথ্যপ্রযুক্তি

মার্চ ১৫, ২০১৬, ১২:০৪ অপরাহ্ন

তানভীর জোহার বিষয়ে সর্তক করল আইসিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে ৮১ মিলিয়ন ডলার চুরির ঘটনায় ‘সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট’হিসেবে পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন পর্যালোচনায় অংশ নেয়া তানভীর জোহা ওরফে তানভীর হাসান জোহা সম্পর্কে সতর্ক করেছে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগ।

আজ সোমবার আইসিটি বিভাগ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, তানভীর হাসান জোহার সঙ্গে আইসিটির কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই। তাকে তারা চেনে না। তার দ্বারা কেউ প্রতারিত হলে তার দায় আইসিটি বিভাগ নেবে না।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কের বাংলাদেশ ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট থেকে হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে প্রায় ৮১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার চুরির খবর বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেকট্রনিক্স ও অনলাইন মিডিয়ায় প্রচারিত হয়। এরপর বিভিন্ন মাধ্যমে টকশো ও আলোচনায় অংশ নেয়া তানভীর জোহা/তানভীর হাসান জোহা নামে এক ব্যক্তিকে আইসিটি বিভাগের কর্মকর্তা ও সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট বলে উল্লেখ করা হচ্ছে।

আইসিটি বিভাগের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবু নাছের স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “এই ঘটনা (রিজার্ভ চুরি) পরবর্তী পরিস্থিতিতে প্রকাশিত ও প্রচারিত কিছু সংবাদ সরকারের আইসিটি বিভাগের গোচরীভূত হয়েছে, যাতে তানভীর জোহা/তানভীর হাসান জোহা নামক অনভিপ্রেত এক ব্যক্তিকে আইসিটি বিভাগের কর্মকর্তা বলে অভিহিত করা হচ্ছে।”

তানভির জোহা অর্থ পাচার/হ্যাকিংয়ের ঘটনা অনুসন্ধানে তদন্ত কমিটির সঙ্গে কাজ করছেন বলেও গণমাধ্যমের আলোচনায় বলা হয়।

এ ব্যাপারে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “আইসিটি বিভাগের সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট বা সাইবার সিকিউরিটি ফোকাল পয়েন্ট বা সাইবার নিরাপত্তা বিভাগের ডাইরেক্টর (অপারেশন) হিসেবেও কর্মরত নন তানভীর জোহা। এই অর্থ পাচার/হ্যাকিংয়ের ঘটনা অনুসন্ধানে আইসিটি বিভাগ থেকে কোনো তদন্ত কমিটি গঠিত হয়নি। এমনকি কোনো প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যৌথভাবেও আইসিটি বিভাগ কোনো অনুসন্ধান কার্যক্রমে জড়িত নয়।”

“তানভীর জোহা/তানভীর হাসান জোহা নামের কোনো ব্যক্তির সঙ্গে আইসিটি বিভাগের কোনো ধরনের সংশ্লিষ্টতা নেই এবং আইসিটি বিভাগের সাইবার সিকিউরিটি স্পেশালিস্ট বা সাইবার সিকিউরিটি ফোকাল পয়েন্ট বা সাইবার নিরাপত্তা বিভাগের ডিরেক্টর (অপারেশন) হিসেবেও কর্মরত নন ।”

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সরকারের আইসিটি বিভাগ এ ঘটনাকে খুবই উদ্বেগজনক হিসেবে বিবেচনা করছে এবং এ বিষয়ে আইসিটি বিভাগ সংশ্লিষ্ট সবাইকে সঠিক ও অর্থবহ তথ্য প্রদান করা যুক্তিসঙ্গত বলে মনে করছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সতর্ক করা হয়, “এ ধরনের সংবাদে আইসিটি বিভাগ বিস্মিত। এই নামের কোনো ব্যক্তির কর্মকাণ্ড দ্বারা কোনো মহল বা প্রতিষ্ঠান প্রভাবিত বা প্ররোচিত বা প্রতারিত হলে তার দায়দায়িত্ব আইসিটি বিভাগ বহন করবে না।”

রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ ও স্পর্শকাতর এ বিষয়ে সবাইকে সর্বোচ্চ সর্তকতা ও সচেতনতা অবলম্বনের জন্য তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ অনুরোধ জানিয়েছে।