বিনোদন

জুলাই ২৪, ২০১৬, ৮:৩৭ অপরাহ্ন

মডেলিং এর মত নাট্যজগতেও সফলতায় বিশ্বাসী ‘নাবিল আহমেদ’

ইমরান মাসুদ :

অভিনয়ের প্রতি ভালোবাসা তার সেই ছোটবেলা থেকেই। ২০০৬ সালের কথা - মডেলিং দিয়েই মিডিয়ায় ক্যারিয়ার শুরু নাবিল আহমেদের। আর তার এই ক্যারিয়ার ক্রমেই পূর্ণতা পেয়েছে আন্তরিক পরিশ্রমের কল্যানে। মডেলিং থেকেই অফার পান নাট্য জগতে। কিন্তু নিজের অজানার মধ্যে ছিল সব কিছু তাই খুব একটা সায় দেন নি সেই প্রস্তাবের। তবে এখানেই শেষ না। চলে আসেন নাবিল ঈশ্বরদী থেকে ঢাকায়।

বন্ধু কনকের মাধ্যমে যোগ দেন ঢাকা থিয়েটারে। কাজ করতে শুরু করেন মঞ্চে। হঠাৎ একদিন পুনরায় অফার পান নাটকে অভিনয়ের জন্য। ততোদিনে নিজেকে একটু গুছিয়ে নিয়েছেন মঞ্চ অভিনেতা নাবিল আহমেদ। তাই আর আগের মতন ফিরিয়ে দেননি কাজ। ভিজুয়্যালি ক্যামেরার সামনে দাড়িয়ে গেলেন ”অবশেষে তুমি” নাটকের জন্য। সহ-শিল্পী বর্তমান সময়ের ব্যস্তময় তারকা অপূর্ব। প্যারালাল রোলে কাজ করার সুযোগ পেলেন নাবিল আহামেদ।

তখন থেকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি নাবিলকে। কাজ করেছেন খলিলুর রহমান শাওনের রচনায় এবং কায়সার আহমেদের পরিচালনায় ”জহুর আলী জহুর” ১০২ পর্বের ধারাবাহিক নাটকেও।

ধারাবাহিক নাটকটি দর্শদের মন কেড়েছিল। সেই সঙ্গে এই নাটকের মাধ্যমে নাবিল আহমেদও কিছুটা জায়গা করে নিয়েছেন দর্শকদের হৃদয়ে। তারপর কাজ করে গেছেন একের পর এক নাটকে। নাবিল অভিনীত উল্লেকযোগ্য নাটকগুলোর মধ্যে রয়েছে – মন বসতি, নফর আলীর হাট, ভুলে গেছো তুমি, নয়নতারা, দ্বিচক্রজান প্রেম, রহমত আলীর ব্যাগ, আলীর নাটোর বাড়ি, জীবন-যাত্রা প্রভৃতি।

অভিনয়ের পাশাপাশি কিছু নাটকের প্রযোজনাও করেছেন তিনি। ব্ল্যাক এন্ড হোয়াইট মিডিয়া তারই প্রডাকশন হাউস। বর্তমানে বাংলাদেশের গন্ডি পেরিয়ে তিনি কিছু খন্ড নাটক নেপাল, থাইল্যান্ড,মালোয়েশিয়া এবং ইন্দোনেশিয়ায় শ্যুটিং করার প্ল্যান করছেন। কথাবার্তাও চলছে কিছু পরিচালকদের সাথে। ব্যাটে-বলে মিলে গেলে আগামী অগাস্ট মাসেই পাড়ি জমাবেন।

কাজ প্রসঙ্গে নাবিল বলেন - ”আমাদের দেশীয় টিভি চ্যানেলগুলোতে প্রায় একই লোকেশন, একই স্পটের কাজ দেখতে দেখতে দর্শকরা একটু বিরক্ত। ওরডিয়ান্স সব-সময়ই চায় একটু ভিন্নতা। অনেক দর্শক টিভিতে বাংলা নাটক দেখে গল্প এবং লোকেশনের জন্য। যারা প্রকৃতিপ্রেমী দর্শক তারা লোকেশন সুন্দরের একটি বাংলা নাটক পেলে ঢিভির সামনে থেকে উঠে যেতে চায় না। সে সকল দর্শকের কথা ভেবেই আমার এ উদ্দ্যোগ।”

তাই বলে নাবিল আহমেদের অভিনয় কিন্তু থেমে থাকবে না। নাটকে অভিনয় এবং প্রযোজনার পাশাপাশি আগামী সেপ্টেম্বর থেকে অভিষেক হতে যাচ্ছেন বড় পর্দায়ও। চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন একটি চলচ্চিত্রে। এ প্রসঙ্গে নাবিল বলেন - ”সব অভিনেতারই স্বপ্ন থাকে বড় পর্দায় কাজ করার। আমিও তার ব্যতিক্রম নই। চলচ্চিত্রে অভিনয়ের স্বপ্ন আমার মিডিয়াতে ক্যারিয়ার গড়ার শুরু থেকেই। মহান আল্লাহপাকের ইচ্ছায় আজ সে স্বপ্ন পূরনের সুযোগ পেয়েছি। আশা করছি আমার সবটুকু পরিশ্রম দিয়ে দর্শকদের ভালো কিছু উপহার দিব ইনশাল্লাহ”।
নিউজপেজ/ইএইচএম