শিক্ষাঙ্গন

ডিসেম্বর ২৯, ২০১৬, ২:০৭ অপরাহ্ন

‘প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে’

সচিবালয় প্রতিবেদক :

বিভিন্ন পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আনা গেছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

তিনি বলেন, প্রশ্নপত্র ফাঁস আমাদের উদ্বেগের বিষয় ছিল। যদিও বিষয়টি রটানো হতো বেশি। তবে আমরা প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণে আনতে পেরেছি।

এজন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং শিক্ষক-শিক্ষিকাদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন মন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষার ফল প্রকাশ উপলক্ষে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. সোহরাব হোসাইন, কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলমগীরসহ বিভিন্ন বোর্ডের চেয়ারম্যানরা।

সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষা মন্ত্রী জানান, এবার ২৪ লাখ ১২ হাজার ৭৭৫ জন শিক্ষার্থী জেএসসি-জেডিসিতে অংশ নেয়। এর মধ্যে পাস করেছে ২১ লাখ ৮৩ হাজার ৯৭৫ জন। ৯ হাজার ৪৫০টি প্রতিষ্ঠান থেকে সব শিক্ষার্থী পাস করেছে। গতবারের চেয়ে এবার ৮৬৭টি প্রতিষ্ঠানে শতভাগ শিক্ষার্থী পাস করেছে।



নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, শুধু আট বোর্ডের অধীন জেএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ৯২.৮৯ শতাংশ। এই পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ লাখ ৩৫ হাজার ৫৯ জন পরীক্ষার্থী। মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১৯ লাখ ৯৩ হাজার ৬১৯ জন। এর মধ্যে পাস করেছে ১৮ লাখ ৫১ হাজার ৪৯৬ জন।



এবার জেএসসি পরীক্ষায় বিদেশের আটটি কেন্দ্রে ৬২৬ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ৬২৩ জন শিক্ষার্থী। পাসের হার ৯৯ দশমিক ৫২ শতাংশ।



মন্ত্রী জানান, এবার জেএসসি ও জেডিসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছে মোট ২ লাখ ৪৭ হাজার ৫৮৮ জন শিক্ষার্থী।



এর আগে আজ সকালে গণভবনে এক অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এবারের জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার ফলের অনুলিপি প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন।



মন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলনের পর নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এবং ওয়েবসাইটেও ফল প্রকাশ করা হয়েছে।