খেলাধুলা

এপ্রিল ২৬, ২০১৭, ১২:০০ অপরাহ্ন

মাশরাফিরা আজ ইংল্যান্ড যাচ্ছেন

নিউজপেজ ডেস্ক

দুয়ারে কড়া নাড়ছে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। ১১ বছর পর এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে যাচ্ছে টাইগাররা। ১ জুন স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে উদ্বোধনী ম্যাচে মাঠে নামবে মাশরাফিরা। টুর্নামেন্টে ভালো খেলতে ১০ দিনের কন্ডিশনিং ক্যাম্প করতে আজ রাতেই ইংল্যান্ডের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়ছেন হাথুরুসিংহের শিষ্যরা। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রাফির আগে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ। সব মিলিয়ে যেন সরগরম হয়ে উঠেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। গতকাল দেশ ছাড়ার আগে ত্রিদেশীয় সিরিজ ও চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে নিজেদের পরিকল্পনা ও প্রত্যাশার কথা ব্যক্ত করেছেন টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মর্তুজা। চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে ‘এ’ গ্রুপে শক্তিশালী প্রতিপক্ষের মুখে বাংলাদেশ। ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মতো ক্রিকেট পরাশক্তি। তাই বলে হাল ছাড়ছেন না মি. অধিনায়ক। মাশরাফি বলেন, চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জেতা কঠিন কিন্তু অসম্ভব নয়। প্রতিপক্ষের দিকে যদি তাকান, তাহলে আমাদের জন্য এটা সহজ হবে না। তবে এর আগে আমরা ইংল্যান্ডকে হারিয়েছি, কার্ডিফে অস্ট্রেলিয়াকেও হারিয়েছি। যদিও ওসব এখন ইতিহাস। তবুও মনে হয় সম্ভব। মানসিকভাবে নিজেরা কীভাবে প্রস্তুত হই, সেটার ওপর সব নির্ভর করছে।

আগামী ১২ মে আয়ারল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েই ত্রিদেশীয় সিরিজে যাত্রা শুরু করবে বাংলাদেশ। এই প্রতিযোগিতায় টাইগার দলপতি নিজেদের ফেভারিট ভাবছেন কি?

মাশরাফি বলেন, ত্রিদেশীয় টুর্নামেন্টে তো ফাইনাল নেই, তাই ফেভারিটের প্রশ্ন আসছে না। সেখানে চারটা ম্যাচ আছে। ম্যাচ বাই ম্যাচ খেলতে হবে। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির প্রস্তুতি হিসেবে এই সিরিজে জেতাটা দলের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। র‌্যাঙ্কিংয়ের দিক থেকেও খুব গুরুত্বপূর্ণ। যেহেতু আন্তর্জাতিক ম্যাচ জিতলে আত্মবিশ্বাসটা ভালো থাকে।
ত্রিদেশীয় সিরিজের আমাদের জেতার সম্ভাবনা কতটুকু? জবাবে অধিনায়ক বলেন, কে কী বলবে জানি না। অবশ্যই জেতার জন্য সেখানে যেতে হবে। এখানে জিততে পারলে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ভালো করার সুযোগ থাকবে।
দীর্ঘ সফরে শেষ দিকে নিজেদের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারে না টাইগাররা। তবে দলপতির মতে, জয়ের মধ্যে থাকলে এ ধরনের সমস্যা কাটিয়ে ওঠা সম্ভব। অন্যদিকে, বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অস্ত্র মোস্তাফিজুর রহমান। চোট কাটিয়ে মাঠে ফিরেছেন ঠিকই কিন্তু পূর্বের ছন্দ খুঁজে পাচ্ছেন না। তাকে নিয়ে আলাদা কোনো পরিকল্পনা রয়েছে কী?

ছন্দহারা মোস্তাফিজকে স্বাভাবিকভাবেই দেখছেন মাশরাফি। বরং মি. ফিজের ক্যারিয়ারের শুরুটাকেই অস্বাভাবিক বলে মনে করেন অধিনায়ক। তিনি বলেন, আমার মনে হয়, ওর সঙ্গে এই মুহূর্তে যা হচ্ছে সেটা স্বাভাবিক। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এসেই আপনি ৪/৫ ম্যাচে ৩০ উইকেট পাবেন- এটা অবিশ্বাস্য একটি ব্যাপার। ব্যাটসম্যানরা ওকে পড়ছে।

তবে মোস্তাফিজকে নিয়ে আশাবাদী মাশরাফি। তিনি বলেন, ওর বয়স মাত্র ১৯/২০। ওর জন্য পরিস্থিতি এখন খুব কঠিন। তার অতীতের দিকে না তাকিয়ে রিল্যাক্সে রেখে আমরা যদি বাস্তবতাটা মেনে নিই তাহলে আগামী ১০ বছরের মধ্যে সে বাংলাদেশের জন্য বড় সম্পদ হবে।



নিউজপেজ২৪/ এ বি