আইন আদালত

মে ১৭, ২০১৭, ১:০৫ অপরাহ্ন

নারায়ণগঞ্জে আ.লীগের ৪ কর্মী হত্যায় ২৩ জনের ফাঁসি

নিউজপেজ ডেস্ক

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারের আওয়ামী লীগের চার কর্মী হত্যা মামলায় ২৩ আসামিকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ বুধবার নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ কামরুন নাহার এ রায় দেন।

রায়ের সময় ১৯ আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। এ মামলার বাকি চার আসামি পলাতক রয়েছেন।

গত ৪ মে মামলার ওপর শুনানি শেষে বুধবার রায়ের জন্য দিন ধার্য করা হয়। ওইদিন রাষ্ট্রপক্ষ ও সব আসামির পক্ষ থেকে আইনজীবীদের যুক্তিতর্ক ও সাক্ষীদের জেরা শেষে আদালত মামলার প্রধান আসামি আবুল বাশার কাশুসহ ১৯ আসামিকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়ে রায়ের দিন নির্ধারণ করেন।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০০২ সালের ১২ মার্চ বিলুপ্ত সদাসদি ইউনিয়নের (বর্তমান গোপালদী পৌরসভা) তৎকালীন চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আবুল বাশার কাশুর নির্দেশে আড়াইহাজার উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলামের ছোট ভাই আ. বারেক, তার ফুফাতো ভাই বাদল, আওয়ামী লীগ কর্মী ফারুক ও কবির হোসেনকে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে নির্যাতনের পর আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করে। ওই ঘটনায় নিহত আ. বারেকের বাবা আজগর আলী মেম্বার বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেন। পরে ২১ জনকে সাক্ষী এবং ২৩ জনকে আসামি করে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়।

এ ঘটনায় ২১ সাক্ষীর মধ্যে ১৬ জন আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন। এদিকে ২৪ জনকে পুলিশ অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে। তাদের মধ্যে প্রথম থেকে চারজন পলাতক।

চার খুনের মামলায় প্রধান আসামি সদাসদি ইউনিয়নের (বর্তমান গোপালদী পৌরসভা) তৎকালীন চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আবুল বাশার কাশুসহ মোট ১৯ জন কারাগারে।


নিউজপেজ২৪/ এ বি