আইন আদালত

মে ২৩, ২০১৭, ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন

সুপ্রিমকোর্টও কব্জায় নিতে চায় সরকার: প্রধান বিচারপতি

নিউজপেজ ডেস্ক

নিম্ন আদালতের মতো সুপ্রিমকোর্টও সরকার কব্জায় নিতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা। আজ মঙ্গলবার সংবিধানের ষোড়শ সংশধনী মামলার শুনানিতে এ কথা বলেন তিনি।

প্রধান বিচারপতি বলেন, সুপ্রিমকোর্টকে পঙ্গু করা হচ্ছে।

আজ শুনানিতে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। এর আগে গত রোববার শুনানি শেষে সোমবার পর্যন্ত মুলতবি করেন আপিল বিভাগ।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন ৭ বিচারপতির আপিল বেঞ্চে শুনানি শুরু হয়।

এর আগে গেলো ৯ মে মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনের শুনানি শেষে ২১ মে পরবর্তী দিন ঠিক করেন। এ সময় ষোড়শ সংশোধনীর আপিল শুনানিতে নিয়োগ দেওয়া অ্যামিকাস কিউরিরাও উপস্থিত ছিলেন।

গত ১২ মার্চ সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী অবৈধ ঘোষণা করে দেওয়া রায়ের বিরুদ্ধে আপিল শুনানির জন্য আজকের দিন ঠিক করেছিলেন আদালত। একইসঙ্গে নিয়োগ দেয়া ১২ অ্যামিকাস কিউরিকে এ সময়ের মধ্যে লিখিত বক্তব্য দিতে বলেন।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি ষোড়শ সংশোধনীর আপিল শুনানিতে ১২ অ্যামিকাস কিউরি নিয়োগ দেন আপিল বিভাগ।

এই ১২ বিশিষ্ট আইনজীবী হলেন- বিচারপতি টি এইচ খান, ড. কামাল হোসেন, ব্যারিস্টার রফিক-উল হক, ব্যারিস্টার এম আমীর-উল ইসলাম, ব্যারিস্টার আজমালুল হোসেন কিউসি, ব্যারিস্টার রোকনউদ্দিন মাহমুদ, ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ, এম আই ফরুকী, ব্যারিস্টার ফিদা এম কামাল, এ জে মোহাম্মদ আলী, এ এফ হাসান আরিফ ও আবদুল ওয়াদুদ ভূঁইয়া।

গত বছর ১১ আগস্ট সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী অবৈধ ঘোষণা করে দেয়া রায় সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়। পরে এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন রাষ্ট্রপক্ষ।

গত বছর ৫ মে বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী, বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি আশরাফুল কামালের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের বিশেষ বেঞ্চ সংখ্যাগরিষ্ঠ মতের ভিত্তিতে ষোড়শ সংশোধনী অবৈধ বলে রায় ঘোষণা করেন।


নিউজপেজ২৪/ এ বি