রাজনীতি

জুলাই ৪, ২০১৭, ১১:২৭ পূর্বাহ্ন

আপিল বিভাগের রায়ে জনগণের বিজয় হয়েছে

নিউজপেজ ডেস্ক

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী হাইকোর্টে অবৈধ ঘোষণা করে দেওয়া রায় আপিল বিভাগে বহাল থাকায় সন্তোষ প্রকাশ করেছে বিএনপি। এ রায়ের মধ্য দিয়ে জনগণের বিজয় হয়েছে বলে মন্তব্য করেছে দলটি। গতকাল নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে আপিল বিভাগের রায়ের প্রতিক্রিয়ায় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এ কথা বলেন।

রিজভী বলেন, সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর মাধ্যমে বিচারপতিদের অপসারণ করার ক্ষমতা জাতীয় সংসদের হাতে নেওয়া হয়েছিল। সুপ্রিমকোর্ট সেটি আজ (সোমবার) অবৈধ ঘোষণা করেছেন। সর্বোচ্চ আদালতের এ সিদ্ধান্ত জনগণের বিজয়। সরকার বিচার বিভাগকে করায়ত্ত করার যে দুরভিসন্ধি করেছিল, সর্বোচ্চ আদালতের এ সিদ্ধান্তে সেই চক্রান্ত ব্যর্থ হল।

তিনি বলেন, বর্তমান জাতীয় সংসদের যে কম্পোজিশন, তাতে উচ্চ আদালতের বিচারকদের অপসারণ করার ক্ষমতা সংসদের ওপর ন্যস্ত থাকলে সেখানে চরম দলীয় কর্তৃত্বের প্রতিফলন ঘটত এবং নিরপেক্ষতা ও ন্যায়বিচার ক্ষুণ হতো। বিচারকদের নানাভাবে প্রভাবিত করতে চাপ প্রয়োগের সুযোগ পেত। সুপ্রিমকোর্টের এ রায়ের ফলে ক্ষমতাসীন দলের আদালতের ওপর অনাকাক্সিক্ষত হস্তক্ষেপের নিশ্চিত সম্ভাবনা দূরীভূত হল।

এক প্রশ্নের জবাবে রিজভী বলেন, যখন এই ষোড়শ সংশোধনী করা হয়, যে সংসদে করা হয়েছে; তা একটা একদলীয় দ্বিতীয় মেয়াদের বাকশালী সংসদ। এখানে অশুভ উদ্দেশ্য নিয়ে তারা এ সংশোধনী করেছিল। আমরা মনে করি, সর্বোচ্চ আদালত যে সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছেন, এটা ন্যায়বিচার নিশ্চিত করবে এবং আগামীতে ন্যায়বিচার পাওয়ার ক্ষেত্রে মানুষকে আরও বেশি আত্মবিশ্বাসী করবে।

ষোড়শ সংশোধনীর আগে বিচারক অপসারণের পদ্ধতি সম্পর্কে বিএনপির এ মুখপাত্র বলেন, যে পদ্ধতি আগে ছিল, ষোড়শ সংশোধনীর আগের যে অবস্থা আমরা মনে করি ন্যায়বিচার অনেকখানি নিশ্চিত হওয়া সম্ভব।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া, এবিএম মোশাররফ হোসেন, আবদুস সালাম আজাদ, সেলিমুজ্জামান সেলিম, মাহবুবুল আলম নান্নু ও খোন্দকার মাশুকুর রহমান প্রমুখ।


নিউজপেজ২৪/ এ বি