আন্তর্জাতিক

জুলাই ৯, ২০১৭, ১১:৫৪ পূর্বাহ্ন

সৌদির নতুন বাজেট: অতিরিক্ত করের বোঝা প্রবাসীদের কাঁধে

নিউজপেজ ডেস্ক

সৌদি আরবে বসবাসরত প্রবাসী ও তাদের ওপর নির্ভরশীল সদস্যদের ওপর নতুন চক্রবৃদ্ধি করারোপ করেছে দেশটির সরকার। গত ১ জুলাই থেকেই এ কর আদায় হচ্ছে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজ। এর আগে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সের ওপর করারোপের চিন্তা ছিল সৌদি সরকারের। তবে আপাতত এ ধরনের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসা হয়েছে। সংবাদমাধ্যমটিকে এমনটিই জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

সৌদি সরকার জানায়, গেল দুবছরে আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম উল্লেখযোগ্য হারে কমে গেছে। এতে বেশ লোকসানের মুখোমুখি হয় সৌদি আরব। ফলে এক বছরে দেশটির বাজেট ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ১০ হাজার কোটি ডলার। এর পরই দেশটি অর্থনৈতিক সংস্কার নিয়ে নড়েচড়ে বসে। এরই মধ্যে ২০৩০ ভিশন নামে একটি রূপকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। এর আওতায় প্রবাসীদের কাছ থেকে কর আদায়ের এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। পরিকল্পনা অনুযায়ী, প্রবাসীদের ওপর নির্ভরশীল প্রত্যেক সদস্যকে চলতি জুলাই থেকে মাসিক ভিত্তিতে ১০০ রিয়াল করে কর দিতে হবে। এটি অবশ্য বছরে বছরে বাড়বে। আগামী বছরের জুলাইয়ে এই ফি ২০০ রিয়াল হবে, ২০১৯ সালে ৩০০ ও তার পরের বছর হবে ৪০০ রিয়াল।

তা ছাড়া প্রবাসীদের হটিয়ে স্থানীয়দের জন্য কর্মসংস্থান বাড়াতে চায় সৌদি আরব। সে পরিকল্পনায় প্রবাসীরা কাজ করে এমন কোম্পানির ওপরও করারোপ করেছে দেশটির সরকার। বছরে বছরে এ করও বাড়বে। যেসব কোম্পানিতে প্রবাসীর সংখ্যা স্থানীয় নাগরিকদের সমান বা তার কম, তাদের জন্য ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে নিয়োগদাতা প্রতিষ্ঠানকে জনপ্রতি ৩০০ রিয়াল করে মাসিক ফি দিতে হবে। ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে এটি হবে ৫০০ রিয়াল ও ২০২০ সালের জানুয়ারিতে হবে ৭০০ রিয়াল।

স্থানীয়দের চেয়ে প্রবাসী বেশি হলে ওই কোম্পানিকে ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে জনপ্রতি ৪০০ রিয়াল করে ফি দিতে হবে। তার পরের বছর ৬০০ রিয়াল ও ২০২০ সাল থেকে দিতে হবে ৮০০ রিয়াল করে। তা ছাড়া প্রত্যেক বিদেশি কর্মীর জন্য ২০০ রিয়াল করে লেভি (এক ধরনের কর) দিতে হয়। এই অর্থের পরিমাণও পর্যায়ক্রমে ২০২০ সাল পর্যন্ত বাড়ানো হবে।

নিউজপেজ২৪/ এ বি